গত ২৪ ঘণ্টায় গাজায় অন্তত ৬৩ জন নিহত হয়েছেন | ইসরায়েলি হামলায় ১ মাসে ৪০০০ এর বেশি ফিলিস্তিনি শিশু নিহত | এক মাসেরও কম সময়ে ১0,000 ফিলিস্তিনিকে হত্যা করেছে ইসরাইল | পুলিশের সঙ্গে বাংলাদেশের পোশাক শ্রমিকদের সংঘর্ষ | গণতন্ত্রের সংজ্ঞা দেশে দেশে পরিবর্তিত হয় – শেখ হাসিনা | গাজা যুদ্ধ অঞ্চলে আশ্রয়কেন্দ্রে ইসরায়েলি হামলায় একাধিক বেসামরিক লোক নিহত হয়েছে | মিসেস সায়মা ওয়াজেদ ডাব্লিউএইচও এর দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া অঞ্চলের নেতৃত্বে মনোনীত হয়েছেন | গাজা এবং লেবাননে সাদা ফসফরাস ব্যবহৃত করেছে ইসরায়েল | বিক্ষোভে পুলিশ সদস্যের মৃত্যুর ঘটনায় বিরোধীদলের কর্মীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে – বাংলাদেশ পুলিশ | বাংলাদেশে ট্রেনের সংঘর্ষে ১৭ জন নিহত, আহত অনেক | সোশাল মিডিয়া এবং সাধারন মানূষের বোকামি | কেন গুগল ম্যাপ ফিলিস্তিন দেখায় না | ইসরায়েল-হামাস যুদ্ধ লাইভ: গাজা হাসপাতালে ‘গণহত্যা’ ৫০০ জনকে হত্যা করেছে ইসরাইল | গাজায় ইসরায়েলি হামলায় ১,৪১৭ জন নিহতের মধ্যে ৪৪৭ শিশু এবং ২৪৮ জন নারী | হিজবুল্লাহ হামাসের চেয়ে অনেক বেশি শক্তিশালী। তারা কি ইসরায়েলের বিরুদ্ধে যুদ্ধে যোগ দেবে? | গাজাকে ধ্বংসস্তুপে পরিণত করার অঙ্গীকার নেতানিয়াহুর | হার্ভার্ডের শিক্ষার্থীরা ইসরায়েল-গাজা যুদ্ধের জন্য ‘বর্ণবাদী শাসনকে’ দোষারোপ করেছে, প্রাক্তন ছাত্রদের প্রতিক্রিয়া | জিম্বাবুয়েতে স্বর্ণ খনি ধসে অন্তত ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে, উদ্ধার তৎপরতা অব্যাহত | সেল ফোনের বিকিরণ এবং পুরুষদের শুক্রাণুর হ্রাস | আফগান ভূমিকম্পে ২০৫৩ জন নিহত হয়েছে, তালেবান বলেছে, মৃতের সংখ্যা বেড়েছে | হামাসের হামলার পর দ্বিতীয় দিনের মতো যুদ্ধের ক্ষোভ হিসেবে গাজায় যুদ্ধ ঘোষণা ও বোমাবর্ষণ করেছে ইসরাইল | পরমাণু বিদ্যুৎ কেন্দ্রের জন্য রাশিয়া থেকে প্রথম ইউরেনিয়াম চালান পেল বাংলাদেশ | বাংলাদেশের রাজনীতিবিদ ও আইন প্রয়োগকারী কর্মকর্তাদের ওপর ভিসা বিধিনিষেধের পলিসি বাস্তবায়ন শুরু করেছে যুক্তরাষ্ট্র | হরদীপ সিং নিজ্জার হত্যায় ভারতের সংশ্লিষ্টতার তদন্তে ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করেছে কানাডা এবং যুক্তরাষ্ট্র | যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা সম্প্রতি বাংলাদেশের বিমানবাহিনী প্রধান হান্নানকে ভিসা দিতে অস্বীকার করেছে |

ভোপালের কান্না

নব্য প্রস্তর যুগের শুরু হয় প্রায় ১২,০০০ বছর আগে। কৃষি বিপ্লব দিয়ে মানুষ অগ্রসর হতে থাকে আধুনিক যুগের দিকে যেখানে মানুষের চাহিদা আর যোগানের মধ্যে বিস্তর পার্থক্য সবসময়ই বিদ্যমান থাকে। তাই দরকার হয় অল্প মজুদে বিস্তর উৎপাদন। আর এক্ষেত্রেই দরকার হয় রাসায়নিক চালিকা শক্তির। আর সেই শিল্প বিপ্লবের যুগ থেকেই শিল্প কারখানাতে রাসায়নিক দ্রব্যের ব্যাবহার হচ্ছে। তবে আধুনিক যুগের চাহিদার যোগান মিটাতে গিয়ে ধ্বংস হচ্ছে পরিবেশ। যুগে যুগে ঘটছে রাসায়নিক বিপর্যয়, যা আজকের আলোচ্য বিষয়।

শুধু ভারতীয় উপমহাদেশেরই নয়, মানব ইতিহাসের অন্যতম বড় রাসায়নিক বিপর্যয় হচ্ছে  ভোপাল গ্যাস দুর্ঘটনা যেখানে প্রাণ হারায় ১৫,০০০ মানুষ, আর আক্রান্ত হন প্রায় ১৫০,০০০ থেকে ৬০০,০০০।

১৯৮৪ সালের ডিসেম্বরের ৩ তারিখ। শীতের রাতে ঘুমাচ্ছিল ভোপাল শহরের নিরীহ জনগন। কে জানতো, হয়তো এই ঘুমই হবে শেষ ঘুম। রাত প্রায় ১২ টার পরে মার্কিন মালিকানাধীন ইউনিয়ন কার্বাইড কীটনাশক কারখানার ভূর্গভস্থ মজুত ট্যাংক ফেটে যায়। তারপর ৪০ টন পরিমাণ বিষাক্ত গ্যাস মিথাইল আইসোসায়ানেট মিশে যায় ভোপাল শহরের বাতাসে।

তৈরি হয় ইতিহাসের নেক্কারজনক ঘটনা। প্রথম ২৪ ঘণ্টায় প্রাণ হারায় প্রায় তিন হাজার মানুষ। ফুস্ফুস প্রদাহের দুর্ভোগ এখনও পোহাচ্ছে সেই নগরীর মানুষেরা। ওই অঞ্চলে জন্ম নেয়া শিশুরা বিকলঙ্গ হয়ে জন্মাচ্ছে।  প্রতিবন্ধী হয়ে জন্মগ্রহণ করছে ভোপালের অনেক শিশু। সেরিব্রাল পালসি এবং মানসিক-বিকাশজনিত সমস্যায় ভুগতে হচ্ছে ভোপালের শিশুকে। ওই সময়ে যারা বেঁচে ছিল তদের অনেকেই এখনও শ্বাস কষ্টে ভুগছে ।

এখন পর্যন্তও ওই অঞ্চলের পানি ব্যাবহার করা স্বাস্থ্যের জন্য ঝুঁকিপূর্ণ। এই কারনে এখনও হোস পাইপের মাধ্যমে বিশুদ্ধ পানি সরবরাহ করা হয়।

তবে এই নেক্কারজনক ঘটনার জন্য দায়ীরা কি যথার্থ সাজা পেয়েছিল? মার্কিন মালিকানাধীন ইউনিয়ন কার্বাইডের কাউকেই কাঠগড়ায় দাড়াতে হয় নি। ওয়ারেন অ্যান্ডারসন ঘটনাস্থল দেখতে আসলে তাকে গ্রেপ্তার করার পরেও ছেড়ে দেয়া হয়। কারন ক্ষমতা আর টাকার কাছে মানুষের জীবনের মূল্য সবসময়ই কম ছিল। তৃতীয় বিশ্বে মানুষের জীবনের দাম নেই বললেই চলে, এ যেন তার জলজ্যান্ত প্রমান। মার্কিন খুদা মিটাতে এভাবেই প্রাণ হারাতে হয়েছে ভোপালের ঘুমন্ত নাগরিকদের। কর্পোরেট জগতের লোভের স্বীকার হতে হয় এভাবেই। ধ্বংস হচ্ছে মানুষ, তার পরিবেশ।

 

 

 

 

 

 

 

Leave a Reply