মনরোগের মহামারি

মনরোগের মহামারি

মনরোগ

মনোবিজ্ঞানী কার্ল জং এর মতে সভ্যতার সবচেয়ে বড় হুমকি প্রকৃতির শক্তিগুলি বা কোনও শারীরিক রোগের দ্বারা নয়, বরং আমাদের মনের সাথে মোকাবিলা করতে আমাদের অক্ষমতা। আমরা নিজেরাই নিজের নিকৃষ্টতম শত্রু বা লাতিন প্রবাদটি যেভাবে বলে – যেমন “মানুষ আরেক মানূষের প্রতি নেকড়ে মনোভাবাপন্ন”।

সভ্যতায় পরিবর্তনে, জং বলেন এই প্রবাদটি “দুঃখজনক হলেও চিরন্তন সত্য” এবং ইতিহাসের সেই সময়গুলিতে আমাদের নেকড়ের মতো প্রবণতা সর্বাধিক পরিলক্ষিত হয় যখন একটি সমাজে মানসিক অসুস্থতা বিরল হবার পরিবর্তে স্বাভাবিক হয়ে পরে। একে জং একটি মানসিক সমস্যার মহামারী বলে অভিহিত করেছেন।

বিংশ শতাব্দীর সর্বগ্রাসী পরীক্ষাগুলি আরও সাম্প্রতিক এবং আরও মারাত্মক এবং একটি গণ সাইকোসিসের উদাহরণ। সোভিয়েত ইউনিয়ন, নাজি জার্মানি, উত্তর কোরিয়া, চীন এবং কম্বোডিয়া জাতীয় দেশগূলোতে বাস্তবতা থেকে সম্মিলিতভাবে বিচ্ছিন্নতা এবং বিভ্রান্তি ও বিড়ম্বনা সর্বশক্তিমান সর্বগ্রাসী সরকারের উত্থানের সূজোগ দিয়েছিল যা লক্ষ লক্ষ মানুষের জীবনকে ধ্বংস করে।