আইরিশ আলু দুর্ভিক্ষ


Attribution: “Irish potato famine memorial” by Sweet One is licensed under CC BY-NC-SA 2.0

১৮৪৫ থেকে ১৮৫২ সাল পর্যন্ত আইরিশদের মহা দুর্ভিক্ষের সাথে মোকাবিলা করতে হয়েছিলো। এটি ইতিহাসের অন্যতম মহা দুর্ভিক্ষগুলির একটি। এই দুর্ভিক্ষটি আইরিশ আলু দুর্ভিক্ষ নামেও পরিচিত। কারন দুর্ভিক্ষের মূলে ছিলো আলু। আলু পচনের রোগ থেকেই শুরু হয় দুর্ভিক্ষ।

আয়ারল্যান্ড তখন ব্রিটিশ শাসনাধীন। বেশিরভাগ আইরিশ ক্যাথলিকদের জমির মালিকানা পাওয়া, এমনকি ইজারা নেওয়া এবং ভোটাধিকারের কোন সুযোগ ছিলো না। আইরিশ কৃষকদের ব্রিটিশ জমিদারদের কাছ থেকে জমি ভাড়া নিয়ে কাজ করতে হয়েছিলো। এর মধ্যেই আয়ারল্যান্ডে আলু প্রধান খাদ্য হিসেবে জনপ্রিয়তা পেয়ে গেলো।

১৮৪৫ এর দিকে আলু ফসলে এক ধরনের ছত্রাকের উপদ্রব শুরু হয় যা আলুর পচন ঘটায়। একদিকে বৃহদাকারে ফসলের ক্ষয়ক্ষতি, অন্যদিকে বাড়তে থাকে অন্যান্য নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের দাম। যখন অবস্থা আরও ভয়াবহের দিকে যেতে থাকে, তখন ব্রিটিশ জাহাজ গুলি অন্যান্য দেশর সহযোগিতা হিসেবে আসা খাদ্য সরবরাহ আটকে দেয়। এতে আরও বিপাকে পরে অনাহারে থাকা আইরিশরা।

ইতিহাসবিদরা আরও বলেন, আয়ারল্যান্ড থেকে ব্রিটেনে তখনও মটর, শিম, খরগোশ, মাছ এবং মধু ইত্যাদি খাদ্য সরঞ্জাম রপ্তানি করা হয়েছিলো, যেখানে খাদ্যের অভাবে মারা যাচ্ছিলো লক্ষাদিক আইরিশরা।

আয়ারল্যান্ডে এই দুর্ভিক্ষের কারনে প্রায় ১৫ লক্ষ আইরিশ অনাহারে মৃত্যুবরণ করেন। আর প্রায় ২০ লক্ষ মানুষ দেশ নিজের জন্মভূমি চাড়তে বাধ্য হয়েছিলেন।

 

তথ্য সূত্রঃ

 

  • https://listverse.com/2013/04/10/10-terrible-famines-in-history/
  • https://www.history.com/topics/immigration/irish-potato-famine#section_1

Leave a Reply