ফ্লোরিডার ১৯ বছর বয়স্ক বালক এক মা ও তার মেয়েকে ছুরিকাঘাত করে হত্যা করেছে

ফ্লোরিডার ১৯ বছর বয়স্ক বালক এক মা ও তার মেয়েকে ছুরিকাঘাত করে হত্যা করেছে

পুলিশ জানিয়েছে যে হত্যাকারি, “কারি” তার প্রথম শিকারকে ঘুমন্ত অবস্থায় ক্রমাগত বুকে ছুরিকাঘাত করে।

কর্তৃপক্ষ বলছে যে দ্বিতীয় মহিলা প্রথম মহিলার প্রতিরক্ষায় আসার পর কারিকে আহত করতে সক্ষম হয়, তবে কারি তাকেও মারাত্মকভাবে ছুরিকাঘাত করে। তার মুখ এবং ঘাড়ে জখম ছিল।

এরপর কারি ঘটনাস্থল ত্যাগ করে এক প্রতিবেশীর কাছে সাহায্যের অনুরোধ করে, যিনি ৯১১ এ যোগাযোগ করেন। কর্তৃপক্ষ ঘটনাস্থলে পৌঁছে মৃতদেহগুলি খুঁজে পায়।

, পুলিশ বলেছিলেন কারির মানসিক সমস্যার লক্ষণ দেখা গেছে, তাকে প্রথম-ডিগ্রি হত্যার পাশাপাশি সশস্ত্র চুরির দুটি অভিযোগে আরেস্ট করা হয়েছে।

পুলিশ জানিয়েছে যে সম্ভবত একটি “অপরিকল্পিত” হত্যাকান্ড, যার সাথে কোন মাদকদ্রব্য জড়িত ছিল না। যদিও তারা স্বীকার করেছে যে “তদন্ত অব্যাহত থাকায় এটি পরিবর্তন হতে পারে”।

কারীর সাথে ভুক্তভোগীদের সাথে কোনও পরিচিত সম্পর্ক বা আত্মীয়তা নেই এবং কীভাবে কারি কিভাবে আহত হয়েছেন সে সম্পর্কে সে বিস্তারিত কিছুই জানায়নি।

লার্গো পুলিশ বিভাগ জানিয়েছে যে ১৯ বছর বয়সী “সেজ কারি” জানালা দিয়ে তাদের বাড়িতে ঢোকার পরে সে রান্নাঘরের সবচেয়ে বড় যে ছুরিটি পেয়েছে তা দিয়ে তাদের ছুরিকাঘাতের কথা স্বীকার করে।