কোন জায়গায় কখনো দামী পোশাক বা সাজগোজ করা উচিত নয়? কেন?

কোন কোন জায়গায় কখনো দামী পোশাক বা সাজগোজ করা উচিত নয়

প্রথমে ছোট একটা ঘটনা দিয়ে শুরু করি। আমাদের নিচ তালার একটা ছেলের খালামনি বাইরে গিয়েছিল স্বর্ণের অলংকার পরে। পরবর্তীতে বাইরে বসে এক লোক তাকে কিভাবে যেন কোন একটা কেমিকাল দিয়ে জম্বির মত বানিয়ে দিয়েছিল। ফলে সে রাস্তায় দাঁড়িয়ে ওই লোক যা চেয়েছে সব খুলে দিয়ে দিয়েছিল।

আওয়ামিলিগের পর পর দুবার আমার নানাবাড়িতে ডাকাতি হয়। দুইবারই আওয়ামি কিছু স্থানীয় লোক জড়িত ছিল। যেহেতু সরকারি লোক তাই তাদের বিরুদ্ধে আমার নানা-নানু কোন অভিজোগ করেনি। আমাদের দেশে আসলে অভিজোগ করে লাভও নেই। এই দেশটার আসলে ভবিষ্যত অত্যন্ত অন্ধকার। আমার নানা বাড়িতে এমনকি দামী কিছুও ছিলনা, ডাকাত দল মূলত চালের বস্তাগুলোও ডাকতি করে নিয়ে যায়।
ব্যপারটা আরও ভয়ানক হতে পারতো। তাকে তুলে নিয়ে কিডন্যাপ করা হতে পারতো।

এখন প্রশ্ন হলো দামী পোশাক পরার দরকার কি ? কম দামে কত ভালো ভালো জিনিস পাওয়া যায়। অনেক সময় দেখতে বিশ্রি অকাজের প্রোডাক্ট মানূষে খালি ব্র্যান্ড ভালু দিয়ে বেশি দামে বিক্রি করে। আর আমাদের দেশের মতো তৃতীয় বিশ্বের দেশে যেখানে মানূষের জীবনের কোন নিরাপত্তা নেই, আইন কানুন নেই সেখানে দামী পোশাক বা সাজগোজ করা একেবারেই উচিত নয় এবং নিরাপদও নয়। উন্নত বিশ্বে গিয়ে এসব করতে পারেন। আমাদের দেশে দামী জিনিসের ব্যবহারে জীবনের ঝুকি রয়েছে।

এখন কথা হলো সরকার মানূষের আয় যত বেশি দেখাক, দেশের খবর আপনি আমি ভালই জানি। এ দেশে বেকারত্ত মারাত্মক ভাবে বেড়েছে। সরকারি পর্যায়ে মারত্মক দুর্নীতির কারনে ব্যবসা বানিজ্যের বারোটা বেজে গেছে তাই দেশে চুরি-ডাকাতিও বেড়েছে। এবং আরও বারবে। মানূষের যখন সৎ ভাবে খেয়ে পরে বাচার কোন সূজোগ পায়না তখন তো অসৎ পথেই পা বারাবে তাইনা ?
আর দেশের টাকা মেরে যারা খায়, তাদের মত গরধব আর কে হতে পারে বলুন ? যত দামী গাড়িতেই চলুক, দুর্নীতি গ্রস্ত দেশে রোড এক্সিডেন্টে মরার সম্ভাবনাও তো বেশি তাইনা? তাই বাপের করা দুর্নীতির রোডে সন্তান যখন আক্সিডেণ্ট করে মরে, তখন আর কি হেসে ফেলা ছাড়া আর কিছু করার আছে বলুন ? আফসোস করা যায় ? না বলা যায়, যেমন কর্ম তেমন ফল ?

Sooner or later Karma catches up to everybody